Views: 483
0 0

পৃথিবীর বহু কবি, সাহিত্যিক, দার্শনিকরা সব জায়গায় পাণ্ডিত্য দেখাতে পারলেও শুধুমাত্র একটা জায়গায় পাণ্ডিত্য দেখাতে গিয়ে হোঁচট খেয়েছে। আর সেই জিনিসটা হলো নারী ও নারীর মন। যা আজও দার্শনিকদের কাছে একটি রহস্য। তাই নারী ও নারীর মনকে বুঝার জন্য নিচের ২০টি তথ্যের মাধ্যমে নারীকে কিছুটা হলেও জানারা চেষ্টা করবো। নারীর মনস্তাত্ত্বিক কিছু কৌশল:

১. গম্ভীর গলায় পুরুষরা যা বলে তা মেয়েরা সেগুলো ভালো করে মনে রাখে।

২. মেয়েরা অনেক ভালো শ্রোতা।

৩. মেয়েদের চোখ তাদের মনের ভিতরের অনেক অনুভতি প্রকাশ করে। চোখকে তাদের হৃদয়ের দরজা বলা যায়।

৪. তারা ইঙ্গিত দিয়ে এবং পরোক্ষভাবে তাদের মতামত প্রকাশ করেন। কিন্তু পুরুষরা সোজা, এত ঝামেলায় না গিয়ে সোজাসুজি বলে দেয়!

৫. যে মুহূর্তে আপনি আপনার স্বাস্থ্যের বিষয়ে চিন্তিত হবেন সেই মুহূর্তে তারা আপনার মায়ের মত হবে। (এটি অবশ্য মেয়েটা কেমন এবং তার মেজাজের উপর নির্ভর করে!)

৬. নারীরা পুরুষদের চেয়ে চেহারা মনে রাখতে ভালো পারে।

৭. অন্যরা যখন তাদেরকে(নারীদের) কারো সাথে তুলনা করে নারীরা তা অপছন্দ করে, কিন্তু নারীরা নিজেই একের পর এক তাদের মনের মাঝে অন্য নারীদের সাথে নিজেদের তুলনা করে।

৮. দুই পুরুষের বন্ধুত্বের সম্পর্ক যতটা শক্তিশালী হয়, কিন্তু দুই নারীর বন্ধুত্ব ততটা শক্তিশালী নয়।

৯. নারীরা একবার সিন্ধান্ত নিলে তা মেনে চলার সম্ভাবনা বেশী থাকে, কিন্তু পুরুষদের তুলনায় সিদ্ধান্ত নিতে বেশি সময় নেয়।

১০. নারীরা কোনো সমস্যা সমাধানের জন্য তাদের মস্তিষ্কের দুটো দিকই ব্যবহার করে কিন্তু পুরুষরা শুধু মস্তিষ্কের বাম অংশ ব্যবহার করে

১১. নারীরা পুরুষদের থেকে অনেক ভালো ভাবে প্রতারণা করতে পারে, কারণ, তারা ভালো অভিনয় এবং দ্রুত মিথ্যা কারণ দেখাতে পারে। কিন্তু পুরুষরা প্রতারণা করতে গিয়ে ধরা পড়লে তারা তা সহজে ব্যাখ্যা করতে পারে না।

১২. যখন কোন বিষয়ে নারীরা বিরক্ত হয় তখন নারীরা তাদের সমস্যা অন্যদের সাথে শেয়ার করতে ভালোবাসে এবং যদি কেউ তাদের সমস্যার কথা ধৈর্য ধরে শুনেন তাহলে তাদের আরও ভাল লাগে।

১৩. অধিকাংশ নারীরা খুবই হিসাবি হয়। বেশীরভাগ নারী তাদের সঞ্চয়ের জন্য প্রতিদিনের আয় ব্যয়ের হিসাব রাখে।

১৪. প্রতি মিনিটে মেয়েরা ১৯ বার চোখের পলক ফেলেন আর ছেলেরা ১১ বার।

১৫. মেয়েরা অন্যের মুখে নিজের সৌন্দর্যের বর্ণনা শুনতে পছন্দ করে, এই কারণে সুন্দর মেয়েরাও এমনটা বলে “আমি জানি আমি দেখতে ভালো নই।” একথা এইজন্য বলে যাতে কেউ তার কথার ভুল ধরে তার সৌন্দর্যের প্রশংসা করে। শুধুমাত্র ২% নারীরা নিজেদেরকে সুন্দর বলে থাকে।

১৬. ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের মুখের সৌন্দর্য বেশি হয়ে থাকে।

১৭. মেয়েদের হৃদস্পন্দন পুরুষদের হৃদস্পন্দনের চেয়ে দ্রুত।

১৮. মেয়েরা বছরে গড়ে ৩০ থেকে ৬৪ বার এবং পুরুষরা ৬ থেকে ১৭বার কাঁদে। (হিন্দি সিনেমা এবং সিরিয়াল এর জন্য বেশি দায়ী।)

১৯. মেয়েরা কি পড়বেন তা নির্ধারণ করার জন্য তাদের মোট জীবনের ১ বছর (কোনো কোনো ক্ষেত্রে তারও বেশি) কাটিয়ে দেন!

২০. মেয়েরা প্রতিদিন গড়ে ২২০০০ শব্দ বলে গড় পুরুষদের তুলনায় (১৩০০০) বেশি।

Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
40 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
Comment | মতামত জানান:

Share this: | শেয়ার করুন:

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *